অনলাইন ইনকাম মোবাইল দিয়ে ২০২১

করোনার ফাঁদে পা দিয়ে মানুষ এখুন ওয়ার্ক ফ্রম হোম দিয়ে অভস্ত হয়ে উঠেছে। তাই তারা এখুন ঘরে বসে অর্থ আই করার বিভিন্ন উপায় খুঁজে থাকে। সেই জন্য আমার এই পোস্ট টি পুরো অনলাইন ইনকাম মোবাইল দিয়ে ২০২১ নিয়ম গুলো বিস্তারিত ভাবে উল্লেখ করেছি।

অনলাইন ইনকাম মোবাইল দিয়ে ২০২১
অনলাইন ইনকাম মোবাইল দিয়ে ২০২১

অনলাইন ইনকাম মোবাইল দিয়ে ২০২১ সালে বিভিন্ন ধরণে করা যাই। যেমন youtube , blog , instagram ইত্যাদি। আপনাকে প্রথমে বুঝে নিতে হবে আপনি কোনটা বেশি ভালো ভাবে করতে পারবেন বা আপনার ইন্টারেস্ট কিসের উপর বেশি আছে.

নিচে দেওয়া এই অনলাইন ইনকাম পদ্ধতি আম্পনি নিশ্চিত রূপে প্রচুর আই করতে পারবেন যদি আপনি সব নিয়ম ঠিক মতন ফলো করতে পারেন।

৫ টি অনলাইন ইনকাম মোবাইল দিয়ে ২০২১ সালে-অনলাইন ইনকাম পদ্ধতি

১. blogging /ব্লগগিং

blogging

হয়তো আপনাদের কাছে ব্লগ্গিং শব্ধ টা একটু অজানা মনে হতে পারে। কিন্তু এটি ২০২১ এর একটি বেস্ট অনলাইন ইনকাম করার পদ্ধতি। এখানে আপনাকে একটি ব্লগ বা ওয়েবসাইট বানাতে হবে এন্ড আপনার পছন্দের টপিক ভেবে আপনার নিজের ভাবনা লোকেদের কাছে পোঁছে দিতে হবে।

যদিও ব্লোগ্গিং শব্দটা যতটা ছোট , বাস্তবে ব্লোগ্গিং এতটা সোজা নোই। তবে এটাও বলে রাখা ভালো , ব্লোগ্গিং করা খুব একটা কঠিন ও না। আপনার রোজ পরিশ্রম এবং আপনার নিষ্ঠা আপনাকে ৪-৫ মাসে সাফল্য এনে দিতে পারে।

আজকাল মানুষ ব্লোগ্গিং কে passion কম business বেশি হিসেবে নিচ্ছে। এবং এটি বলে রাখা ভালো , যে একটি ব্লগ থেকে আপনি লিমিট হীন ইনকাম বা আই করতে পারেন। আমার এমন বন্ধুরাও আছে যে কিনা , একটি ব্লগ থেকে মাসিক ২০০$ আই করে আবার এমন বন্ধু আছে যারা মাসিক ১০০০$ ইনকেও করে। অন্য দিকে ৫-৬ বছর পুরোনো এক্সপেরিন্সড ব্লগাররা একটি ব্লগ থেকে ৫০,০০০$ মাসিক আই করে থাকে।

তবে এবার ব্লোগ্গিং করতে কি কি লাগে, তাতে আশা জাগ্। দেখুন ব্লোগ্গিং একটা খুবই কম খরচে শুরু করার মতন business মডেল। এতে একজন beginnerer দরকার কেবল মাত্র একটি ওয়েব হোস্টিং (web hosting ), একটি ডোমেইন (domain ) এবং এলটি মোবাইল (mobile ) অথবা ল্যাপটপ (laptop )

web server

ল্যাপটপ আপনাদের জন্য আবশ্যিক নয় , তবে ল্যাপটপ হলে আপনার সুবিধা হত। যদি না থাকে তাহলে মোবাইল দিয়েও আপনি খুব ভালো ভাবে ব্লোগ্গিং ক্যারিয়ার শুরু করতে পারবেন।

আর web hosting এর জন্য আপনি hostinger বা hostgator বা bluehost দেখতে পারেন। এখানে আপনার ৩০০০ টাকার মতন খরচ আসবে একবছরের জন্য। এবং ভালো কথা এই যে আপনি একটি domain ফ্রি তে পাবেন , এদের থেকে hosting কিনলে। পুরো একবছরের জন্য।

এর জন্য আরো বিসোধে জানতে এখানে ক্লিক করুন।

তারপর আপনার যেটা করতে হবে সেটা হলো একটি টপিক (topic ) বা niche ভাবতে হবে. মানে আপনাকে ভাবতে হবে আপনি কিসের উপর ব্লগ লিখবেন।

যেমন ধরুন আপনি আপনার ব্লগ রিডার দেড় ইনফরমেশন দিতে পারেন ,

১. কিকরে তারা চিঠি বা রচনা লিখবে , চিঠির নিয়ম গুলি কি কি হতে পারে , কত ধরনের চিঠি হয় , পরীক্ষার জন্য কোন ধরণের চিঠি বেশি ইম্পরট্যান্ট , ইত্যাদি নিয়ে আপনি লিখতে পারেন। এটি হলো একটি educational niche . এবং এর কম্পেটিটন বাংলাতে খুবই কম যা আপনাকে সহজে অনলাইন ইনকাম মোবাইল দিয়ে ২০২১ এনে দিতে পারে।

educational niche

২. যদি আপনার interest কুকুর নিয়ে থেকে থাকে, তাহলে এটি আপনার জন্য শ্রেষ্ট টপিক হবে। আপনি এখানে নিজের ব্লগে কুকুরের খাবার ,কুকুরের ট্রেনিং এসব নিয়ে লিখতে পারেন। এবং এটি ২০২১ এর একটি দ্রুত growing niche এর মধ্যে একটি।

dog niche

৩. আপনি যদি একজন technology প্রেমী মানুষ হয়েথাকেন তাহলে আপনি খুব সহজেই একটি টেক ব্লগ শুরু করতে পারবেন। যদিও ২০২১ যে টেক ব্লগে কম্পেটিশন মোটামোটি ভালোই আছে, তবে তও এখনো এই niche কাজ করা যেতে পারে।

technology niche

বাংলা niche সম্বন্ধে আরো বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন।

niche নির্বাচন করার পর আপনার কীওয়ার্ড রিসার্চ করে শুরু ব্লগ লেখার কাজ। মনে রাখবেন আপনি ১০০ টি ব্লগ পোস্ট আগেই না লিখে কোনো কিছু আশা করবেন না. এবং হ্যা , ব্লগ পোস্ট গুলির কোয়ালিটি একদম টপ ক্লাস হওয়া অনিবার্য।

ব্লগ পোস্ট লেখার সময় আপনাকে একটু বেসিক SEO অর্থাৎ Search Engine Optimization শিখতে হবে।

যদি আপনি SEO সম্মন্ধে প্রথম শুনলেন তাহলে আপনার জেনে রাখা ভালো , SEO দিয়ে আপনি বিভিন্ন সার্চ ইঞ্জিন রোবট কে আপনি বুঝিয়েদিচ্ছেন আপনার লেখা ব্লগ পোস্ট তা কি নিয়ে বা কাদের জন্য।

আপনার সেই ব্লগ পোস্ট এর কোয়ালিটি এবং সেই কীওয়ার্ড এর কম্পেটিশন বিচার করে আপনাকে সার্চ ইঞ্জিন তাদের সার্চ পেজগুলিতে RANK করবে এন্ড লোকে আপনার ব্লগটি খুঁজে পাবে সেই কীওয়ার্ড টি সার্চ করলে।

এইভাবে লোকে আপনার ব্লগ এ আসবে এন্ড আপনার লেখা ব্লগ পড়বে।

আপনার মনে প্রশ্ন হতে পারে, আপনি আই করবেন কি ভাবে ? ঠিক ?

আপনার সুবিধার জন্য বলে রাখি , ব্লগ থেকে আই করার পদ্ধতি অনেক রকম হয়। সেই পদ্ধতি গুলি দেওয়া আছে।

১. ব্লগ এ ADS দেখিয়ে আই করা : আপনি আপনার ব্লগ কে প্রথমে ADS নেটওয়ার্ক এর সাথে যুক্ত করে রাখবেন এবং লেখুন কোনো reader আপনার ব্লগ যে ব্লগ পোস্ট পড়তে আসবে তখন সেই ad network তাকে ড দেখাবে এবং আপনার ইনকাম হবে.

২. বিভিন্ন company র affiliate থেকে আই করা : আপনি আপনার ব্লগ যে কিছু product বলতে পারেন এবং সেই প্রোডাক্ট যদি আপনার ব্লগ রিডার রা কেনে তাহলে এপানি তার কিছু পার্সেন্ট কমিশন পাবেন। বেশির ভাগ ব্লগ amazon affiliate যুক্ত হয়ে সেখানে product ব্লগ যে দিয়ে থাকে। আপনি চাইলে যান করতে পারেন।

affiliate marketting

৩. sponser পোস্ট : আপনি নিজের ব্লগ কে যখুন বড় কর নেবেন তখন অন্য , ব্লগার রা আপনার ব্লগ যে নিজেদের পোস্ট করতে চাইবে। তখন আপনি সেখান থেকে বা হলো মতন ইনকাম করতে পারবেন।

ব্লোগ্গিং এর ইনকাম পোটেনশিয়াল বিশাল বোরো , যদি কেও ঠিক মতন কাজ করতে পারে তাহলে তাকে র দেখতে হবে না। যদি আপনি ব্লগ কে স্টার্ট থেকে শেষ অবধি step বই step জানতে চান , তাহলে এখানে পড়ুন।

২. youtubing /ইউটুবিং-অনলাইনে আয় করার নিশ্চিত উপায় 2021

youtubing

এটি একটি খুব জনপ্রিয় শব্দ অনলাইন ইনকাম মোবাইল দিয়ে ২০২১ এ। যদিও আজকাল প্রচুর youtuber চলে এসেছে, তবুও যদি আপনি ভালো কনটেন্ট বানাতে সক্ষম হয়ে থাকেন তাহলে ২০২১ এও আপনি ইউটুবে দিয়ে ভালো অনলাইন আই করতে পারবেন।

ইউটুবে এ ভিডিও ভিডিও বানানোর জন্য আপনার দরকার সুদু একটা ভালো স্মার্ট মোবাইল। যেটা আমি আশাকরবো ২০২১ যে সবার কাছে প্রায় আছে। এবং দিন আগের আপডেট আসার পর ইউটুবে শর্টস দিয়ে , আজকাল নতুন চ্যানেল খুব সহজেই grow করা যাই।

এখানেও আপনাকে একটি টপিক বেছেনিতে হবে। আপনি যদি তবলা বাজাতে ভালো বসেন বা আপনার খুব ভালো টেকনোলজি জ্ঞান থেকে থাকে তাহলে আপনি সেটার উপরে চ্যানেল শুরু করুন।

২০২১ এর সব থেকে তাড়াতড়ি grow হওয়া টপিক গুলি হলো ,

১. ফিটনেস (fitness ) টপিক : এখানে আপনি নিজের ফিটনেস সম্বন্ধেই ভিডিও বানাতে পারেন। সেটি জিম বা যোগ বা ব্যাম হতে পারে। এই ধরণের চ্যানেল গুলি খুব তাড়াতড়ি গ্রও হয়।

fitness

২. এডুকেশনাল টপিক : আপনি যদি খুব ভালো অংক বা ফিজিক্স পড়াতে পারেন, তাহলে সেই নিয়ে আপনি একটা ইউটুবে চ্যানেল শুরু করুন। সেখানে আপনি একটি ওহীতে বোর্ড নিয়ে পড়ান , ছেলে মেয়েরা এই ধোনের চ্যানেল আজকাল খুব ভালো বাসা।

educational

ইউটুবে থেকে ইনকাম আপনার ৩ ভাবে হবে। যখুন আপনার চ্যানেল এ ভালো মতন সাবস্ক্রাইবার হয়ে যাবে , তখন আপনার বিভিন্ন ব্র্যান্ড ইমেইল করবে তাদের প্রোডাক্ট প্রমোশন করে দেবার জন্য। আপনি তাদের থেকে ভালো চার্জ করতে পারবেন এন্ড আপনার আই ভালো মতন হবে.

যেই মুহূর্তে আপনার চ্যানেল ভালো মতন জায়গায় চলে যাবে, তখন আপনার কাছে ভালো স্পনসরশিপ অফার আসতে শুরু করবে। সেখানে থেকেও আপনার ভালো আয় হয়েযাবে।

৩নম্বর হলো , ad দেখিয়ে ইনকাম করা. যখনি আপনার চ্যানেল এ ১০০০ সাবস্ক্রাইবার এবং ৪০০০ ঘন্টা ওয়াচ টাইম পূর্ণ হয়েযাবে , আপনি তখন নিজের চ্যানেল মনিটাইজশন এর জন্য পাঠাতে পারবেন। এবং অপ্প্রভ হবার পর আপনার চ্যানেল যে ad আশা শুরু করবে এবং আপনার ইনকাম শুরু হবে.

৩. এফিলিয়াটে মাৰ্কেটটিং-অনলাইনে ইনকাম করার উপায় ২০২১

affiliate marketting

আপনি বিভিন্ন মার্চেন্ট প্লাটফর্ম যেমন , ক্লিকব্যাংক(clickbank ) , ডিজিস্টরে (digistore ), shareashale প্লাটফর্ম যুক্ত হবেন এন্ড সেখান থেকে প্রোডাক্ট নিয়ে আপনি প্রোমোটে করবেন , facebook ads দিয়ে। ফলে আপনি কোম্পানি কে sale এনে দেবেন এবং কোম্পানি আপনাকে কমিশন দিয়েদেবে।

এর জন্য আপনাকে শুরু একটি ল্যান্ডিং পেজ বানাতে হবে এন্ড কিছু টাকা ইনভেস্ট করতে হবে ফেইসবুক ads এ। এর রেজাল্ট মোটামোটি ২-৩ দিনে দেখতে পাবেন, যদি আপনার ল্যান্ডিং পেজ আকর্ষণীয় হয়।

৮. ইনস্টাগ্রাম (instagram ) পেজ-ছাত্রদের জন্য অনলাইনে আয়

instagram page

অনলাইন ইনকাম মোবাইল দিয়ে ২০২১ এ করতে গেলে , ইনস্টাগ্রাম সব থেকে ভালো প্লাটফর্ম। এখানে জাস্ট আপনাকে একটিভ থেকে একটি পেজ বানিয়ে সেখানে পোস্ট করতে হবে।

আপনি canva বেবহার করে সুন্দর সুন্দর ইনস্টাগ্রাম পোস্ট খুব সহজেই বানাতে পারবেন। মনে রাখবেন একটি নতুন পেজ এ আপনাকে দিনে ৫-৬ পোস্ট করতেই হবে , এবং ১-২ রিলিস প্রতিদিন আপলোড করতে হবে।

এটি ৫-৬ মাস করলে দেখবেন আপনার কাছে প্রমোশন এবং affiliate এর জন্য বিভিন্ন ব্র্যান্ড আসতে শুরু করছে। আপনি আটকে কাছ থেকে টাকা নিয়ে তাদের প্রতমিতন করেদেবেন নিজের পেজ এ.

আপনার এখানে খরচ সেরকম নিচুই হবে না. হবে সুদু খাটনি। যদি আপনি করতে রাজি থাকেন তাহলে শুরু করে দেন এন্ড অনলাইন আই শুরু করে দেন।

অনলাইন ইনকাম মোবাইল দিয়ে ২০২১ ইনস্টাগ্রাম পেজ টপিকস

২০২১ এই টপিক গুলির পেজ খুব ভালো গ্রও করছে :-অনলাইনে আয়ের সেরা উপায়
১. meme পেজ
২. ধার্মিক পেজ
৩. সেলিব্রিটি ফ্যান পেজ

 

 

Leave a Reply

Your email address will not be published.